আমাদের লক্ষ্য অর্জনের জন্য অর্থ সাহায্য প্রদান করুন, যাতে করে আমার এই মহামারি মোকাবিলা করতে পারি।

সচেতনতামূলক কার্যক্রম

করোনা যোদ্ধা, আর টিভি নিউজ

Image
সংগৃহীত: $4500 | লক্ষ্য: $5,00,0005%
City Bank

THE CITY BANK LTD

. অ্যাকাউন্ট নাম: PATHWAY

. অ্যাকাউন্ট নম্বর: 140 181 443 0001

. সুইফ কোড: CIBL BDDH

. রাউটিং নম্বর: 225263585

. ব্যাংকের শাখা: Pallabi Branch, Mirpur
Dhaka-1216

bKash

বিকাশ

. A/C TYPE: মার্চেন্ট

. A/C NO: 01870721165


. Personal

. 01777162619

ROCKET

রকেট

. A/C TYPE: এজেন্ট

. A/C NO: 018707211607


. Personal

. 

Nagad

নগদ

. A/C TYPE: মার্চেন্ট

. A/C NO: 01870721160


. Personal

. 01777162619

Image
করোনাভাইরাসের প্রভাবে পৃথিবী হঠাৎ স্তব্ধ। সবচেয়ে কঠিন পরীক্ষার মধ্যে আছেন শহরের ছিন্নমূল খেটে খাওয়া মানুষ, পরিবহন শ্রমিক ও গ্রামের দরিদ্র জনগোষ্ঠী। তাদের জমানো কোন সঞ্চয় নেই। প্রতিদিনের আয়টুকুই ভরসা। তাদের কাছে সামাজিক দূরত্ব মানে পরিবার নিয়ে না খেয়ে থাকা।

পাথওয়ে থেকে আমরা ৩৫,০০০ ছিন্নমূল, দিনমজুর, পরিবহন শ্রমিক ও দরিদ্র পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিচ্ছি, কিন্তু প্রয়োজন আরও অনেকের । সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসুন এই দরিদ্র পরিবারের কথা চিন্তা করে। আপনাদের দেওয়া অর্থ পাথওয়ে পরিবার দায়িত্ব নিয়ে ক্ষুধার্ত, কর্মহীন মানুষের কাছে পৌঁছে দিবে।

আমাদের মিশনে যোগদান করুন

আপনি কিভাবে সাহায্য করতে পারেন ?

অনুদান করুন

আমাদের কার্যক্রমের মাধ্যমে দারিদ্র্যে বিমোচনের জন্য আমাদের মিশনে অবদান রাখুন।

স্বেচ্ছাসেবক হয়ে উঠুন

স্বেচ্ছাসেবক হিসাবে আমাদের সাথে যোগদান করুন এবং আসুন আমরা জাতীয় পুনর্গঠন করি।

অংশীদার হোন

অংশীদার হয়ে আমাদের সাথে যোগদান করুন এবং আসুন আমরা জাতীয় পুনর্গঠন করি।
Image

লকডাউন কি?

যখন একটি রাষ্ট্র বা সরকার কোন মহামারি বা যুদ্ধের মত অবস্থান থেকে জনগণকে রক্ষা করতে চায় তখন জনগণের চলাফিরা এবং জনসমাগম সীমিত করে দেয়। একেই লকডাউন বলে।

কখন কোন সরকার কোন দেশে লকডাউন করেন?

কোন দেশে যখন যুদ্ধ, দাঙ্গা এবং মহামারির মত পরিস্থিতি সংগঠিত হয় এবং যদি প্রত্যাহিক কর্মজীবন চলমান থাকলে পরিস্থিতি আরো খারাপ অবস্থানে যায় তখন সরকার লকডাউন ঘোষনা করেন।

লকডাউন পরিস্তিতিতে পাথওয়ে কি করছে?

এই লকডাউন পরিস্থিতিতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠি হলো দিনমুজুর এদের খাদ্যের নিশ্চয়তার জন্য সরকার কিছু পদক্ষেপ নিয়েছেন। এরসাথে পাথওয়ে দরিদ্র জনগোষ্ঠির সাহায্যে এগিয়ে এসেছে। এটির অংশ হিসাবে পাথওয়ে প্রতিদিন ৬০০ পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন যতদিন পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হয়।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

করোনাভাইরাস কি?
এটি একধরনের “আরএনএ (RNA) ভাইরাস, যার প্রথম উপসর্গ সর্দি, কাশি, জ্বর থাকে। পরবর্তীতে সরাসরি ফুসফুস ও কিডনিতে আঘাত হানে। এটিকে নোভেল করোনা বা Covid-19 বলা হয়ে থাকে। গত ৩১শে ডিসেম্বর চীনের উহান শহরে প্রথম জানা যায় এই ভাইরাসের কথা।
হাঁচি কাশির সময় টিসু ব্যবহার করুন অথবা কনুই দিয়ে নাক ও মুখ ঢেকে রাখুন
যদি আপনার জ্বর, কাশি, শ্বাসকষ্ট থাকে তবে অন্যদের কাছ থেকে নিরাপদ দূরত বজায় রাখুন
আক্রান্ত ব্যক্তির নিকট থেকে অন্তত ৩ ফিট দূরত্ব বজায় রাখুন
করোনা ঝুকিপূর্ণ এলাকা বা দেশ থেকে ফেরার পর অন্তত ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকুন
বারবার সাবান পানি দিয়ে ২০-৩০ সেকেন্ড হাত ধুতে হবে
অপরিষ্কার হাত দিয়ে মুখ, নাক ও চোখ স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন
ব্যবহারিত টিস্যু পেপার ঢাকনাযুক্ত বিনে ফেলুন
সামাজিক দূরত বজায় রাখতে হবে, অনেক মানুষ একসাথে জড় হওয়া যাবে না, করমর্দন এবং কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন
Image

মৃত ব্যক্তির দাফন

কর্নোভাইরাসে আক্রন্ত  হয়ে কোন ব্যক্তি মারা গেলে তার  লাশ সমাহিত করার দায়িত্ব নিচ্ছে পাথওয়ে
Image

অসুস্থতা বোধ করছেন?

দ্রুত ডাক্তারের (ফ্রি) পরামর্শ নিন

এম বি বি এস

ডা. ইমরান-০১৬২৫০৩৪৭৪৬
ডা. সাকিব-০১৭২৯৫১৫৯১০
ডা. তোহিদ-০১৮৩১৯৩৯৮৮২

গাইনী বিশেষজ্ঞ

ডা. মাহা-০১৬৮৩৭৯১৪১৬
ডা. রলিন-০১৬২০৭৩৫৭৯৬
ডা. অন্তরা-০১৭৫২৮৭৬৭২৭

ডেন্টাল বিশেষজ্ঞ

ডা. শাহিদা আক্তার শিরিন-০১৭৬৪৪৬১২৭৯
  • অভিজ্ঞ এমবিবিএস ডাক্তারগণের সাথে ফ্রি যোগাযোগ সেবা
  • কোভিড-১৯ বা অন্যান্য স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিষয়ে দক্ষ সহায়তা
  • যে কোন সময় স্বাস্থ্য জনিত সমস্যা নিয়ে বিভ্রান্ত না হয়ে আমাদের ডাক্তারের পরামর্শ নিন
  • আপনার অথবা আপনার পরিবারের কারও স্বাস্থ্য জনিত সমস্যা শেয়ার করুন এবং পরামর্শ নিন

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে পাথওয়ে'র কার্যক্রম

ক্ষুধার্ত ও কর্মহীন মানুষকে খাদ্য সহায়তা

করোনা প্রভাবে হঠাৎ স্তব্ধ পৃথিবী। সবচেয়ে কঠিন অবস্থায় আছেন শহরের ছিন্নমূল খেটে খাওয়া মানুষ,  পরিবহন শ্রমিক ও গ্রামের দরিদ্র জনগোষ্ঠী।  তাদের জমানো কোন সঞ্চয় না থাকায় তারা আছেন কঠিন বিপাকে। প্রতিদিনের আয় টুকুই ছিল ভরসা।  তাদের কাছে সামাজিক দুরত্ব মানে হচ্ছে পরিবার নিয়ে না খেয়ে থাকা।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস দ্বারা বিশ্ববাসী যখন স্তমিত তখন তৃতীয় বিশ্বের একটি উন্নয়নশীল দেশ হিসাবে বাংলাদেশের জনগণ ও সরকার এই সংকট মোকাবেলা করতে হিমশিম খাচ্ছে। এছাড়া বর্তমানে করোনায় যে পরিস্থিরি সৃষ্টি হয়েছে সেটা কেবলমাত্র সরকারের একার পক্ষে মোকাবেলা করা সম্ভব নয়।

আক্রান্ত ব্যক্তির স্বাস্থ্যসেবা এবং মৃত ব্যক্তির দাফন

করোনা ভাইরাসে মানবজাতি এক বৈশ্বিক সংকট মোকাবেলা করছে। মানবজাতির ইতিহাসে এমন ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি মানুষকে পড়তে হয়নি। করোনা বিশ্বব্যাপী একধরনের ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে চলেছে। যেখানে গাছের পাতার মত এক এক করে ঝড়ে পড়ছে মনুষ্য প্রাণ। সমস্ত বিশ্ব এই ভাইরাসের তান্ডবলীলায়

ভিডিও